ঢাকা, ২০শে সেপ্টেম্বর, ২০২১ ইং

বিজয়নগর উপজেলা ছাএলীগ নেতা শেখ এমরানের নেতৃত্বে কৃষকের ধান কাটা হচ্ছে

বিজয়নগর

নিউজ

প্রকাশিত: ৮:৩৪ অপরাহ্ণ, এপ্রিল ২৫, ২০২০

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ- গতকাল শুক্রবার রুস্তম আলি (৬০) তার প্রায় ৪০ শতক জমির ধান কেটে তা মাথায় করে কৃষকের বাড়িতে নিয়ে মাড়াই করে দিয়েছেন বিজয়নগর উপজেলা ছাত্রলীগের সহ সভাপতি শেখ এমরানুল ইসলাম ও বিজয়নগর উপজেলা ছাত্রলীগের বিজ্ঞান ও তথ্য প্রযুক্তি বিষয়ক সম্পাদক এইচ এম সুমনের নেতৃত্বে ছাত্রলীগের কর্মীরা। বিজয়নগর উপজেলার হরষপুর ইউপির অসহায় কৃষক রুস্তম আলি জানান, এই জমিটুকুই তার সম্বল। এতেই এবার বোরো ধান চাষ করেছেন। ধানের বাম্পার ফলন হওয়ায় তিনি যতটা খুশি হয়েছিলেন! ধান কাটার শ্রমিক না পেয়ে ততটাই হতাশ হয়েছেন। তিনি আরো বলেন, ৬০০ টাকা রোজেও শ্রমিক মিলছিলো না। তাই সোনালি ফসল কিভাবে ঘরে তুলবেন তা নিয়ে ছিলেন দুঃশ্চিন্তায় । এহেন পরিস্থিতিতে ছাত্রলীগ নেতাকর্মীরা তার খেতের ধান কেটে দেওয়ার উদ্যোগ নেওয়ায় তিনি হয়েছেন অত্যান্ত আনন্দিত। শুধু ধান কেটে দিয়ে তারা ক্ষ্যান্ত হননি ছাত্রলীগ নেতাকর্মীরা! মাথায় করে তার বাড়িতে নিয়ে মাড়াই করেও দিয়েছেন। আবেগ আপ্লুত। রুস্তম আলি ছাত্রলীগের কর্মী’দের জন্য মঙ্গল কামনা করেন। উপজেলা ছাত্রলীগের সহ-সভাপতি, শেখ এমরানুল ইসলাম জানান, করোনা আতঙ্কে যখন শ্রমিক সংকট! কৃষকের ক্ষেতের ধান নষ্ট হওয়ক্র উপক্রম হচ্ছিলো । ঠিক তখনই ব্রাহ্মণবাড়িয়া-৩ আসনের অভিভাবক, যোদ্ধাহত বীর মুক্তিযোদ্ধা, র.আ.ম. উবায়দুল মোকতাদির চৌধুরী -মহোদয় এর নির্দেশে ও ব্রাহ্মনবাড়িয়া জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি রবিউল হোসেন রুবেল ও সাধারণ সম্পাদক শাহাদাৎ হোসেন শোভন ভাইয়ের পরামর্শে আমরা ছাত্রলীগ নেতাকর্মীরা রুস্তম আলির ধান কেটে মাড়াই করে দিয়েছি। বিজয়নগর উপজেলা ছাত্রলীগের বিজ্ঞান ও তথ্য প্রযুক্তি বিষয়ক সম্পদক, এইচ.এম. সুমন জানান, কৃষকদের ধান কেটে সহযোগিতা করার জন্য নির্দেশ দিয়েছেন কেন্দ্রীয় কমিটি ও ব্রাহ্মনবাড়িয়া জেলা ছাত্রলীগ। তারপর আমরা হরষপুর ইউনিয়ন ছাত্রলীগের কিছু ভাইদের নিয়ে হরষপুর ইউনিয়নের, এক হতদরিদ্র অসহায় কৃষকের ধান কেটে নিয়ে বাড়ীতে পৌঁছে মাড়াই করে দেই। তিনি আরো বলেন, উপজেলার আরো নিম্নআয়ের বা অসহায় কৃষক থাকলে আমরা খোঁজ-খবর নিয়ে আমরা তাদের পাশে দাঁড়াবো। আমাদের এ স্বেচ্ছাশ্রম অব্যাহত থাকবে বলেও তিনি জানা

  • এই বিভাগের সর্বশেষ