ফিক্সিংয়ে জড়িত রেফারি পরিচালনা করবেন ইংল্যান্ডের ম্যাচ

প্রকাশিত: ১২:০০ অপরাহ্ণ, জুলাই ৯, ২০২৪

ফুটবলে ম্যাচ ফিক্সিংয়ের ঘটনা তেমন একটা শোনা যায় না। তবে আন্তর্জাতিক পর্যায়ে যে দু-একটা ঘটনা ঘটে, সেগুলোতেও কঠোর অবস্থান নেওয়ার কারণে তা আর ডালপালা গজাতে পারে না। এমনই এক ম্যাচ ফিক্সিংয়ে জড়িত রেফারি পরিচালনা করতে যাচ্ছেন ইংল্যান্ড ও নেদারল্যান্ডসের সেমিফাইনাল ম্যাচটি।

জার্মান ফেলিক্স জোয়েরকে উয়েফা এই ম্যাচ পরিচালনার দায়িত্ব দিয়েছেন। তার অতীতটা বেশি সুবিধার নয়। ৪৩ বছর বয়সী এই রেফারিকে ম্যাচ ফিক্সিং কাণ্ডে জড়িত থাকার অভিযোগে ২০০৫ সালে আড়াই বছরের জেল দেয় জার্মান আদালত। পরে তিনি আপিল করলে জার্মান ফুটবল ফেডারেশন ২০০৬ সালে তা ছয় মাসে নামিয়ে নিয়ে আসে। সঙ্গে সেই ম্যাচের সহকারী রেফারি রবার্ট হোয়েজেরও ছিলেন। তবে জোয়ের ছয় মাসের সাজা হলেও হোয়েজকে আজীবন নিষিদ্ধ করা হয়েছিল।

জোয়েরের সঙ্গে ইংলিশ মিডফিল্ডার জুড বেলিংহ্যামের একটা ঝামেলা দীর্ঘদিনের। এর আগে বুন্দেসলিগাতে থাকাকালীন এই জোয়েরের সঙ্গে একবার ঝামেলা হওয়ার কারণে ৪০ হাজার ইউরো জরিমানা করা হয়েছিল বর্তমানে রিয়াল মাদ্রিদে খেলা এই ফুটবলারকে। ২০২১ সালে বায়ার্ন মিউনিখের বিপক্ষে একটা সিদ্ধান্ত নিয়ে অভিযোগ জানিয়েছিলেন বেলিংহ্যাম। পরে তাকে এই জরিমানা দেওয়া হয়।

ইংলিশ ডিফেন্ডার লুক শকে সংবাদ সম্মেলনে জোয়ের সম্পর্কে জিজ্ঞেস করা হলে তিনি বলেন, ‘না আমরা তেমন চাপ অনুভব করছি না। আমরা উয়েফাকে সম্মান করি। তারা যাকেই রেফারি হিসেবে দিক না কেন, এটাতে তেমন কোনো পরিবর্তন হবে না। আমরা মাঠের খেলাতেই নজর রাখছি। কে বা কাকে রেফারি হিসেবে থাকছে, সেটি নিয়ে আমরা চিন্তিত না। মাঝে মাঝে কিছু কিছু মুহূর্তে আপনি রেফারির উপর চড়াও হতে পারেন যা খেলারই অংশ।’

এবারের ইউরোতে এখন পর্যন্ত তিনটি ম্যাচ পরিচালনা করেছেন জোয়ের। সবগুলোতেই কোনো রকম ঝামেলা ছাড়াই সুষ্ঠুভাবে পরিচালনা করেছেন।