দেশবরেণ্য বুদ্ধিজীবী, লেখক, অধ্যাপক সিরাজুল ইসলাম চৌধুরীর ৮৯তম জন্মদিন

প্রকাশিত: ৩:২৪ অপরাহ্ণ, জুন ২৩, ২০২৪

আজ দেশবরেণ্য বুদ্ধিজীবী, লেখক, শিক্ষক, ইমেরিটাস অধ্যাপক সিরাজুল ইসলাম চৌধুরীর ৮৯তম জন্মদিন। আজও চিন্তা, চেতনায় এবং বুদ্ধিজীবিতার প্রশ্নে তিনি টগবগে এক যুবক। তার জন্ম ২৩ জুন, ১৯৩৬ সালে মুন্সীগঞ্জ (প্রাচীন নাম বিক্রমপুর) জেলার শ্রীনগর উপজেলার বাড়ৈখালী গ্রামে। বাবার চাকরি সূত্রে শৈশব কেটেছে রাজশাহীতে ও কলকাতায়। তবে সিরাজুল ইসলাম চৌধুরীর শিক্ষার্থী ও শিক্ষকতার পুরো সময় কেটেছে প্রধানত ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে। গত শতাব্দীর পঞ্চাশের দশকের শেষাশেষি আইয়ুব খান যখন পাকিস্তানের সামরিক শাসক হিসেবে হোন আবির্ভূত, তখন তিনি যোগ দেন শিক্ষকতায়। শিক্ষকতার মহান ব্রতের সঙ্গে লেখালেখিকে বেছে নিয়েছিলেন মানুষ-সমাজ-রাষ্ট্রের কল্যাণে। তার লেখা প্রগতির পক্ষে এক আদর্শিক লড়াই। ইতিহাসের ধূসর পাতায় ঘটতে থাকা বিবিধ ঘটনা, পাকিস্তানের শোষণ-শাসন, বঞ্চনা-নিগ্রহের মতো সকল প্রকার অন্যায়-অবিচারের সাক্ষী তিনি। দীর্ঘকাল ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে ইংরেজি ভাষা ও সাহিত্য বিভাগে অধ্যাপনা করেছেন। মার্কসবাদী চিন্তাচেতনায় উদ্বুদ্ধ এবং নতুন দিগন্ত পত্রিকার প্রতিষ্ঠাতা সম্পাদক। ১৯৮০-এর দশকে ‘গাছপাথর’ ছদ্মনামে দৈনিক সংবাদ পত্রিকায় সামাজিক ও রাজনৈতিক বিষয়ে সাপ্তাহিক প্রতিবেদন লিখে খ্যাতি অর্জন করেন।‌ ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সিনেট কর্তৃক দুবার উপাচার্য হওয়ার জন্য মনোনীত হয়েছিলেন। কিন্তু প্রত্যাখ্যান করেছেন সে পদ।