অস্ত্রের অভাবে মিত্রদের ওপর ক্ষোভ ঝাড়লেন জেলেনস্কি

প্রকাশিত: ১০:৪৪ পূর্বাহ্ণ, এপ্রিল ১১, ২০২৪

রাশিয়ার অনবরত হামলার মুখে কোণঠাসা হয়ে পড়েছে ইউক্রেন। বিশেষ করে, দেশটির পূর্বে খারকিভ শহরে রুশ আক্রমণ বেড়েছে। সেখানকার পরিস্থিতি পর্যবেক্ষণে নিজেই গিয়েছিলেন ইউক্রেনীয় প্রেসিডেন্ট ভলোদিমির জেলেনস্কি। জানিয়েছেন, আত্মরক্ষার জন্য যথেষ্ট অস্ত্র ও গোলাবারুদ না পেয়ে অসহায়বোধ করছেন তারা।

সম্প্রতি কয়েকটি আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যমের সঙ্গে সাক্ষাৎকারে পশ্চিমা মিত্রদের থেকে যথেষ্ট সামরিক সহায়তা না পাওয়ার বিষয়ে নিজের ক্ষোভ উগরে দিয়েছেন জেলেনস্কি। তিনি বলেন, সহযোগী দেশগুলোর কাছে এমন কিছু অস্ত্র রয়েছে, যা ইউক্রেনের অস্তিত্বের খাতিরে এখনই প্রয়োজন। কেন সেই অস্ত্র ইউক্রেনের হাতে তুলে দেওয়া হচ্ছে না, তা বুঝতে পারছেন না তিনি।

বিশেষ করে, আকাম প্রতিরক্ষা ব্যবস্থা ও গোলাবারুদের অভাব সম্পর্কে ক্ষোভপ্রকাশ করেন ইউক্রেনীয় প্রেসিডেন্ট। এ প্রসঙ্গে তিনি জার্মানির কাছ থেকে দূরপাল্লার টাউরুস ক্ষেপণাস্ত্র পাওয়ার আশাপ্রকাশ করেন। যদিও জার্মান চ্যান্সেলর ওলাফ শলৎস বারবারই সেই সম্ভাবনা নাকচ করে দিয়েছেন।

সাক্ষাৎকারে জেলেনস্কি বলেন, সম্ভবত রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিনের পরমাণু অস্ত্র প্রয়োগের হুমকির কারণেই জার্মান চ্যান্সেলর তাদের সবচেয়ে শক্তিশালী অস্ত্র ইউক্রেনকে দিতে ভয় পাচ্ছেন।

মার্কিন কংগ্রেসে আটকে থাকা বিশাল অংকের সামরিক সহায়তা প্যাকেজ অনুমোদনেরও আশা ছাড়ছেন না জেলেনস্কি। পশ্চিমা মিত্রদের থেকে আধুনিক অস্ত্র পেলে যুদ্ধক্ষেত্রে রাশিয়াকে পরাজিত করার ব্যাপারে যথেষ্ট আত্মবিশ্বাসী তিনি।

সূত্র: ডয়েচে ভেলে