ঢাকা, ৮ই মে, ২০২১ ইং

দেশবাসীর নিকট দোয়া চেয়েছেন র আ ম উবায়দুল মোকতাদির চৌধুরী এমপি

বিজয়নগর

নিউজ

প্রকাশিত: ৩:২১ অপরাহ্ণ, অক্টোবর ১২, ২০১৯

১৯৭০ সালে বাংলাদেশ ছাত্রলীগ কেন্দ্রীয় ছাত্র সংসদের সহ-সাধারণ সম্পাদক হিসেবে দয়িত্ব পালন করেন। ১৯৭১ সালের মুজিব বাহিনীর অধীনে মহান মুক্তিযুদ্ধে অংশগ্রহণ করলে পাকিস্তানী বাহিনীর গুলিতে তার একটি পা আঘাতপ্রাপ্ত হয়। ১৯৭৩-৭৪ সালে কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের গ্রন্থনা ও প্রকাশনা সম্পাদক এবং ১৯৭৫ সালে বাকশাল গঠন হলে ২১ সদস্য বিশিষ্ট জাতীয় ছাত্রলীগ কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য মনোনীত হন।

১৯৭৫ সনে জাতিরজনক শাহাদাত বরণ করলে দেশব্যাপী গণতান্ত্রিক ছাত্রআন্দোলন ও প্রতিরোধ সংগ্রাম গড়ে তোলার ক্ষেত্রে তিনি অসামান্য অবদান রাখেন।

১৯৭৫ সালের ২০ অক্টোবর জাতির পিতার হত্যার প্রতিবাদে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে মিছিলের নেতৃত্বদান ও ৪ নবেম্বর ঢাকার রাজপথে প্রথম প্রতিবাদ মিছিলের অন্যতম সংগঠক হিসেবে ভূমিকা পালন করেন। এরই ধারাবাহিকতায় ১৯৭৬ সনের অক্টোবরে গ্রেফতার হয়ে প্রায় ২ বছর কারাবরণ করেন এবং ১৯৭৮ সালের সেপ্টেম্বরে মাসে মহামান্য হাইকোর্টের নির্দেশে মুক্তি পান।

১৯৮৩ সনের বিসিএস পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হয়ে তিনি প্রশাসন ক্যাডারে যোগদান করেন এবং ১৯৮৬ সালে জাতীয় সংসদের বিরোধী দলীয় নেতা শেখ হাসিনার সহকারী একান্ত সচিব হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন।

১৯৯৬ সনে খালেদা জিয়া কর্তৃক একতরফা নির্বাচনের বিরুদ্ধে বাংলাদেশ সিভিল সার্ভিসের অফিসারদের নিয়ে গঠিত জনতার মঞ্চের অন্যতম সংগঠক হিসেবে তিনি গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করেন। ১৯৯৬-২০০১ সাল পর্যন্ত প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার একান্ত সচিব হিসেবে সফলতার সাথে দায়িত্ব পালন করেন।

বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী কমিটিতে দুইবার সদস্য মনোনীত হন। বর্তমানে ব্রাহ্মণবাড়িয়া-৩, সদর ও বিজয়নগর নির্বাচনী এলাকার মাননীয় সংসদ সদস্য র আ ম উবায়দুল মোকতাদির চৌধুরী এমপি । তিনি বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের কার্যনির্বাহী কমিটির অন্যতম সদস্য, বিশিষ্ট লেখক, বিমান ও পর্যটন মন্তনালয় বিষয়ক মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সভাপতি এবং ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি যুদ্ধাহত বীর মুক্তিযোদ্ধা। সমগ্র ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলার মাটি ও মানুষের জননেতা উন্নয়নের রূপকার। যার জন্ম স্পর্শে ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা আজ ধন্য, অভিসিক্ত, গৌরবানিত।
আজ তিনি অসুস্হ হয়ে ওপেন হার্ট সার্জারী করার জন্য তিনি ৩টা ৪০মি একটি বিমানে দিল্লী যাচ্ছেন
এদিকে তিনি দিল্লী যাবেন এই খবর পেয়ে তার নির্বাচনীএলাকার নেতা কর্মী সহ ব্রাহ্মনবাড়ীয়া জেলার বিভিন্ন উপজেলা হইতে কয়েক হাজার নেতা কর্মী আজ দুইদিন ধরে তাকে বিদায় দেওয়ার জন্য তার বাসয় ভীর করেন তিনি সকলকে যার যার অবস্হান দোয়া ও প্রর্থনা করার অনুরোধ জানান

  • এই বিভাগের সর্বশেষ