ঢাকা, ১১ই জুন, ২০২১ ইং

বিজয়নগরের আমতলী বাজারে চায়ের দোকানের আড়ালে চলছে জানুর রমরমা মাদক বানিজ্য

বিজয়নগর

নিউজ

প্রকাশিত: ৬:৫২ অপরাহ্ণ, এপ্রিল ১৪, ২০২০

নিজস্ব প্রতিবেদক : মাদকের ভয়াবহ ছোবলে ধংস হচ্ছে যুবসমাজ । মাদকের নেশায় লন্ডভন্ড হচ্ছে নিন্মবিত্ত থেকে উচ্চবিত্ত পরিবারের ছেলে মেয়ে । মাদকের ছোবলে অবিভাবকরা তাদের সন্তানদের নিয়ে রয়েছে চরম উদ্বেগ- উৎকন্ঠায় ।বর্তমানে উপজেলা থেকে জেলা পর্যায় প্রশাসনের চোঁখ ফাকি দিয়ে চালিয়ে যাচ্ছে রমরমা মাদক ব্যাবসা। সম্পপ্রতি বিজয়নগর উপজেলার চান্দুরা ইউপি’র আলাদাউদ পুর গ্রামের জানু মিয়া দীর্ঘদিন যাবত মরন নেশা ইয়বা ও ফেন্সিডিল বিক্রি করে আসছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। গোপন সুত্রে জানা যায়, উপজেলার চান্দুরা ইউপি’র সাতগাঁও আমতলী বাজারে মোগবুল মৃধার বাড়ির সামনে মৃধা মার্কেট এর গলিতে জানুর একটি চায়ের দোকান রয়েছে। ঐ দোকানের আড়ালেই জানু বহূদিন যাবত মাদক বিক্রি করে আসছে। সকাল থেকে গভির রাত পর্যন্ত চলে মাদক ব্যাবসা। সুত্র বলছে ,চায়ের দোকান জানু মিয়ার লোক দেখানো ব্যাবসা। চায়ের দোকানের আড়ালেই এ অবৈধ মাদক ব্যাবসা চালিয়ে যাচ্ছে। জানু মিয়া এতটাই ভয়ংকর যে তার বিরুদ্ধে কেউ প্রতিবাদ করতে সাহস পাচ্ছেনা। জানুর অবৈধ মাদকের বিরুদ্ধে কেউ কথা বললে তাকেও মাদক দিয়ে পুলিশে ধরিয়ে দিবে বলে একটি সুত্র নিশ্চিত করছে।

নাম প্রকাশ না করার শর্তে বাজারের একাধিক ব্যবসায়ী বিজয়নগর নিউজকে বলেন , সারাদিনের কাজ শেষে সন্ধার পরে জানু মিয়ার দোকানে চা পান করতে আসলে চা দেবার তো দুরের কথা সে অন্য কাজ নিয়ে ব্যাস্ত থাকেন।দোকানের কাষ্টোমারের থেকে জানুর কাছে অপরিচিত লোকদের প্রাধান্যটা যেনো অনেকটাই বেশি। মটর সাইকেল যোগে অপরিচিত লোকদেরকে দোকানের আরালে নিয়ে বিদায় দেয়।

এ ব্যাপারে এলাকার সচেতন মহল বলেন, জানু মিয়া মাদকের সাথে জরিত রয়েছে শুনেছি। তার বিরুদ্ধে প্রশাসনের জরুরী এ্যাকশন নেওয়া দরকার না হলে এলাকার যুব সমাজের বারোটা বেজে যাবে। অতি সত্যর আমরা প্রশাসনের হস্তে ক্ষেপ কামনা করছি।

  • এই বিভাগের সর্বশেষ